Home / লাইফ-স্টাইল / অলিভ অয়েলের কিছু অসাধারণ ব্যবহার
olive oil
image source: medicalnewstoday

অলিভ অয়েলের কিছু অসাধারণ ব্যবহার

ভেজষ ওষুধিগুণে ভরপুর অলিভ অয়েল বা জলপাই এর নিযার্স বা তেলকে তরল সোনা বলেও অভিহিত করা হয়। এটি আমাদের মানব শরীরের নানাবিধ উপকার সাধন করে থাকে।

জানা যায় যে, মানুষেরর শরীরের শান্তির দূত হলো জলাপাইয়েল তেল বা অলিভ অয়েল। আরবিতে জয়তুন নামে ডাকা হয় এই তেলকে। নানা প্রকার ভেষজগুণে ভরপুর এই ফলটি গ্রীক সভ্যতার প্রারম্ভিককাল থেকে এই তেল ব্যবহার হয়ে আসছে রন্ধন শৈলীতে ও চিকিৎসাশাস্ত্রে। আকর্ষণীয় ও মোহনীয় গুনাবলি বিদ্যমান এই তেলে।

চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের মতে, জলপাই তেলে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যেগুলো আমাদের শরীরকে সুস্থ্য ও সুন্দর রাখতে সহায়তা করে থাকে। অলিভ অয়েল পেটের জন্য খুবই উপকারী। এটি শরীরে এসিড কমায়, লিভার পরিস্কার করে থাকে। যাদের কোষ্ঠকাঠিণ্য রয়েছে, তারার দিনে ১ চামচ অলিভ অয়েল খেলে দারুন উপকার পাবেন।

এক নজরে দেখে নিন অলিভ অয়েলের অসাধারণ কিছু ব্যবহার:

১। নখ লম্বা রাখতে যারা পছন্দ করেন তারা নখকে আরও মজবুত ও শক্তিশালী করতে নখে নিয়মিত অলিভ অয়েল মাখুন। নখ আরও শক্তিশালী ও স্বাস্থ্য উজ্জ্বল হবে।

২। পায়ের গোড়ালী বা পা ফাটা সমস্যা রোধ করতে অলিভ অয়েলের জুরি মেলা ভার। তাই যাদের পা ফাটার সমস্যা আছে তারা অলিভ অয়েল পায়ে মাখুন দারুন কার্যকর ফল পাবেন।

৩। চুলে শ্যাম্পু করার আগে কুসুম গরম জলে ৩/৪ চামচ অলিভ অয়েল মিশ্রণ করে চুলে মাখিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর চুল ধুয়ে ফেলেুন তাহলে চুলের উজ্জ্বলতা বাড়বে।

৪। অনেকেরই ঠোঁট ফাটে তারাও নিয়মিত অলিভ অয়েল ঠোঁটে মাখাতে পারেন । এটি আপার ঠোঁট ফাটা রোধ করতে দারুন সহায়ক।

৫। মেকআপ রিমুভার হিসেবে দারুন কার্যকর অলিভ অয়েল। তুলার মধ্যে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল নিয়ে চোখ ও মুখের মেকআপ তুলে ফেলুন। এতে ত্বকে কোন প্রকার অস্বস্থি হবে না বরং ত্বক হবে উজ্জ্বল ও সমৃণ।

৬। শেভিং এর আগে ক্রিম হিসেবে অলিভ অয়েল ব্যবহার করে দেখুৃন। ত্বকের উপরে রেজার লাগানোর আগে অলিভ অয়েল মাখিয়ে নিন। এতে শেভিং এর পরর্বতী জ্বালা থেকে রক্ষা পাবেন।

৭। গবেষকদের মতে, অলিভ অয়েল ত্বকের যন্তে নানা প্রকার উপকারী। এই তেল নিয়মিত গায়ে মাখলে শরীরের বয়সের ছাপ ও চামড়া কুচকানো রোধ করা যায়।

৮। যাদের ত্বকে চুলকানির সমস্যা রয়েছে তারা নিয়মিত এ তেল মাখতে পারেন। এ ছাড়াও শিশুর ত্বকেও এ তেল নিরাপদ তাই আপনার শিশুকেও মাখাতে পারেন এ তেল।

৯। অলিভ অয়েল শুষ্ক ত্বকের প্রাণ ফিরে আনতে ওস্তাদ। এ তেল ত্বকের অতিরক্ত শুষ্ক ও ত্বকের ছোপ ছোপ ত্ব কোমল ও সমৃণ করতে সহায়ক।

১০। অলিভ অয়েল খেলে শরীরে খারাপ কোলেস্টরল জমতে পারেনা তাই যাদের শরীরে কোলেস্টেরল এর মাত্রা বেশি তারা এ তেল খেতে পারেন।

১১। অনেকেরই কানে নানা প্রকার সমস্যা হয়ে থাকে। কানের যে কোন সমস্যা মোকাবিলায় অলিভ অয়েল অসাধারণ কার্যকর।

তথ্য ও ছবি: সংগ্রহীত।

Check Also

সচেতন মানুষরা যে ভুলগুলো ২য় বার করে না

জীবনে চলার পথে ভুল হবে এটাই স্বাভাবিক। তবে এসব ভুল একবার করার পরেই আমাদের সতর্ক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!