Home / লাইফ-স্টাইল / হৃদরোগ প্রতিরোধে ডা. দেবি শেঠির পরামর্শ
হৃদরোগ প্রতিরোধ
dr. devi shetty. image sorurce: npr.org

হৃদরোগ প্রতিরোধে ডা. দেবি শেঠির পরামর্শ

সারা বিশ্বে প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষ রোগ রোগে মৃত্যুবরণ করছে! যা আমাদের জন্য এক ভয়ানক সংবাদ। শুধু মৃত্যুবরণই নয় দীর্ঘ সময় ধরে এ রোগ আমাদের ভোগাচ্ছে। একটু সর্তকতা ও নিয়ম-কানুন মেনে চললে সহজেই আমরা এ রোগ প্রতিরোধ করতে পারি।

উপমহাদেশের বিখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবি শেঠি ভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন যে, কীভাবে সহজেই হৃদরোগ প্রতিরোধ করা যায়। তিনি ভারতের বিখ্যাত নারায়না ইনস্টিটিউট অব কাডির্য়াক সায়েন্সের প্রতিষ্ঠাতাও তিনি। নারায়ণ কাডির্য়াক সায়েন্স হচ্ছে উপমহাদেশের অন্যতম একটি হৃদরোগ চিকিৎসা কেন্দ্র যা ভারতের তামিলনারুড় ভেলোরে অবস্থিত।

এক নজরে দেখে নিন ডা. দেবি শেঠির উপদেশগুলো যা হৃদরোগ প্রতিরোধে সহায়ক:

১। ধূমপান ও মাদক বর্জন করতে হবে।

২। শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

৩। খাবারে আমিষের পরিমাণ বাড়াতে হবে অন্যদিকে শর্করার পরিমান কমাতে হবে।

৪। একটানা দীর্ঘ সময় বসে থাকা যাবে না। প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট করে হাঁটতে হবে।

৫। শাক জাতীয় খাবার প্রত্যহ খাবার তালিকায় রাখতে হবে।

৬। অনিয়মিত খাদ্যাভাস পরির্বতন করতে হবে।

৭। হৃদযন্ত্রের জন্য দারুন উপকারী খাবার হলো ফল ও সবজি তাই নিয়মিত এসব খাবার খেতে হবে।

৮। হৃদযন্ত্রের জন্য তেল খুবই ক্ষতিকর । তাই যতটা পারা যায় তেল পরিহার করে চলতে হবে।

৯। তাই সোয়াবিন তেলের পরির্বতে ব্রান অয়েল বা অলিভ অয়েল রান্নায় ব্যবহার করতে পারেন।

১০। নিয়মিত রক্ত পরীক্ষা করতে হবে। সুগার ও কোলেস্টেরল এর মাত্রা সঠিক পর্যয়ে রাখতে হবে।

১২। রক্তচাপ নিয়মিত পরীক্ষা করাতে হবে।

১৩। হৃদরোগ এড়াতে জগিং করার চেয়ে ভালো হলো হাঁটা।

১৪। বয়স ৩০ হলে সবারই নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে হবে।

১৫। রোগী হৃদরোগে আক্রন্ত হলে প্রথমে রোগীকে শুইয়ে দিতে হবে।

১৬। এরপর জিহ্বার নিচে ১টি অ্যাসপিরিন ট্যাবলেট রাখতে হবে।

১৭। অ্যাসপিরিন ট্যাবলেটের পাশাপাশি একটি সারবিট্রেট ট্যাবলেট দিতে পারলে আরও সুবিধা হয়।

১৮। কেউ হৃদরোগে আক্রান্ত হলে হইহুল্লোর না করে ঠাণ্ডা মাথায় সবকিছু সামাল দিতে হবে।

১৯। হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীকে যতদ্রুত সম্ভব হাসপাতলে বা চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যেতে হবে।

তথ্যসূত্র: সংগ্রহীত।

Check Also

সচেতন মানুষরা যে ভুলগুলো ২য় বার করে না

জীবনে চলার পথে ভুল হবে এটাই স্বাভাবিক। তবে এসব ভুল একবার করার পরেই আমাদের সতর্ক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!